উত্তর:  একটা কোম্পনী যদি অনলাইনে আসে তাহলে কয়েক হাজার এমপ্লয়মেন্ট তৈরী হয় । এই ভাবে পৃথিবীতে প্রতিদিন হাজার হাজার কোম্পানী অনলাইনে কনভার্ট হচ্ছে এবং প্রতিদিন লাখ লাখ জব পোষ্ট তৈরী হচ্ছে ।

কিন্তু সেই হারে কাজ জানা ফ্রিল্যান্সার তৈরী হচ্ছে না । কারণ মার্কেটপ্লেসে একটা একাউন্ট করলেই তাকে ফ্রিল্যান্সার বলে না ।  যে ৬ মাস ধরে কষ্ট করে  এডভান্সড লেভেলের কাজ শিখেছে তাকেই ফ্রিল্যান্সার বলে । কিন্তু ধৈর্য ধরে এডভান্সড লেভেলের কাজ শিখে এই রকম মানুষ খুবই কম । মানুষ বেশী শিখতে চায় না । ব্রেইনকে কষ্ট দিতে চায়না । কত কম শিখে কত বেশী ইনকাম করা যায় সেই চেষ্টাই করে সবসময় ।  এই কারণে কাজ জানা ফ্রিল্যান্সার খুবই খুবই কম ।

আচ্ছা  যদি বাংলাদেশের সকল মানুষ খুব ভালভাবে কাজ শিখে তখন কি হবে ? প্রথমত এটা সম্ভব নয় । কারণ ১০০ জন মানুষ যদি কাজ শিখার উদ্যোগ নেয় তবে ৯০ জনই ২য় মাস পর্যন্ত ধৈর্য ধরতে পারে না । ৬ মাস পর্যন্ত টিকে থাকবে বড়জোর ৫ জন এবং তারাই সফল ফ্রিল্যান্সার হবে । তাই বাংলাদেশের সকল মানুষ যদি পরিপূর্ণ উৎসাহ নিয়ে ফ্রিল্যান্সিং শুরু করে তবে মাত্র কয়েক লাখ শেষ রাউন্ড পর্যন্ত যেতে পারবে ।

আচ্ছ যদি অলৌকিকভবে বাংলাদেশের সকল মানুষ এক্সপার্ট ফ্রিল্যান্সার হয়ে যায় তখন কি হবে ? তখন কি কাজ কমে যাবে ? কম্পিটিশন বেড়ে যাবে ? কাজের রেইট কমে যাবে ?  উত্তর হচ্ছে : “না” ।

কারণ পৃথিবীর মাত্র কয়েকটি দেশ ফ্রিল্যান্সিং করে যেমন বাংলাদেশ ভারত পাকিস্থান, ফিলিফিন এবং নাইজেরিয়া । আর বাকী প্রায় ২০০ টা দেশে কাজ দেয় । যার ফলে এখানে চাকরী প্রার্থীর চাইতে চাকরী দাতা অর্থাৎ জব পোষ্ট অনেক অনেক গুণ বেশী । যার ফলে বাংলাদেশের সকল মানুষ ফ্রিল্যান্সিং করলেও তা ফ্রিল্যান্সিং জব মার্কেটের চাহিদা পূরণ করার জন্য যথেষ্ঠ না ।

গত ২ বছর আগে আমাদের স্টূডেন্টদের টার্গেট দেয়া হল ২য় মাসে কমপক্ষে ৫ হাজার টাকা ইনকাম কিন্তু এখন আমাদের স্টূডেন্টরা কোর্সের ২য় মাস ২০ হাজার প্লাস ইনকাম করতে পারে । আগে যেই কাজের ভ্যালু ছিল ১০ ডলার এখন সেই কাজের ভ্যালু ৫০ ডলার । কারণ যেই হারে চাকরী বাড়ছে সেই হারে দক্ষ ফ্রিল্যান্সার বাড়ছে না । তাই বায়াররা বেতন বাড়িয়ে দিতে বাধ্য হচ্ছে এবং বেশী বেতন দিয়েও ভাল ফ্রিল্যান্সার পাচ্ছে না কারণ ভাল কাজ জানা ফ্রিল্যান্সার খুুবই কম ।

আরেকটি কথা হল বায়াররা কম টাকা দিয়ে কাজ করাতে চায় না । তারা কোয়ালিটি চায় । আর কোয়ালিটি এনসিউর করার জন্য তারা বেশী বেতন দিতে রাজী থাকে ।

 

সুতরাং আপনি যদি ভালভাবে কাজ শিখেন তবে আপনার ক্যারিয়ার সিকিউরড ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *